Logo

একজন রেমিট্যান্স যোদ্ধা মরিশাস প্রবাসীর মৃত্যু

অনলাইন ডেক্স;
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১

আঃ আলীম -ষ্টাফ রিপোর্টার : 

পূর্ব আফ্রিকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলা ভুমি হিসাবে খ্যাত ছোট্ট দেশ মরিশাস। শুধু প্রাকৃতিক সৌন্দর্যই নয়, কর্মক্ষেত্রের জন্য ও মরিশাস বেশ অনুকুল পরিবেশ রয়েছে। সেই সুবাদে এখানে প্রায় ৪০ হাজার বাংলাদেশী প্রবাসী বিভিন্ন পেশায় কর্মরত আছে।

তারই ধারাবাহিকতায় অন্যান্য বাংলাদেশী প্রবাসীদের সাথে জীবন-জীবিকার সন্ধানে মরিশাস পাড়ি জমান, মোঃ মিন্টু মিয়া (৪৫)। তিনি প্রায় ৫ বছর আগে মরিশাসের, সেমিগ্রিয়া, সাইফিনিক্স এ, ফায়ার মাউন্ট টেক্সটাইল কোম্পানি লিঃ নামক একটি তৈরি পোশাক কারখানায়” ফ্লোর ক্লিনার” হিসাবে যোগদান করেন।মোটামুটি ভাবে ভালোই চলছিল তার প্রবাসের কর্মজীবন।এদিকে দেশে রেখে আসা তার পরিবার ও একরকম ভালোই দিনাতিপাত করছিল।

এমতাবস্থায় আজ দুপুর ১২ টায় তিনি উক্ত কোম্পানিতে কর্মরত অবস্থায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এসময় তাকে তার সহকর্মীরা মরিশাসের স্হানীয় একটি সরকারী হাসপাতালে নিয়ে যান। কর্তব্যরত ডাক্তার জানান,তিনি হার্ট অ্যাটাক করেছেন।তার অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় কিছুক্ষন পরেই তার মৃত্যু হয়। প্রবাসী মিন্টু মিয়ার

মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেন, একই কোম্পানিতে কর্মরত তার সহকর্মী,” ইয়ংষ্টার প্রবাসী কল্যাণ সংঘের ” সম্মানিত সদস্য মোঃ শাহাদাত হোসেন সোহাগ। উক্ত ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেনঃ সংগঠনটির চেয়ারম্যান মানবতার ফেরিওয়ালা হিসাবে খ্যাত, মোঃ হাফিজুর রহমান হাফিজ।

তিনি মিন্টু মিয়ার পরিবারের প্রতি ও গভীর দুঃখ সমবেদনা জানান।এবং এই রেমিট্যান্স যোদ্ধা ভাইটির জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

ঢাকার ধামরাইয়ের বাসিন্দা মিন্টু মিয়ার মৃত্যু কালে স্ত্রী সহ এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক ছিলেন। তার ছেলে কলেজে এবং মেয়ে স্কুলে পড়াশোনা করে বলে জানা গেছে।

এদিকে এই খবরে মিন্টু মিয়ার পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। চলছে শোকের মাতম।এমনি করোনার পরিস্থিতিতে জনজীবন অতীষ্ট, তারউপর পরিবারটির স্বজন হারা কান্নায় এলাকার বাতাস ভারী হয়ে গেছে। এক মাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তিটিকে হারিয়ে পরিবারটি খুবই অসহায়

হয়ে পড়েছে।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মিন্টু মিয়ার লাশ দেশে পাঠানোর জন্য কোম্পানি থেকে কি ব্যবস্হা নিবে তা এখনো জানা যায়নি। এদিকে উক্ত কোম্পানিতে কর্মরত তার সহকর্মিরা ও শোকাভিভূত হয়েছেন।


More News Of This Category
Theme Created By Tarunkantho.Com