Logo

পাসপোর্ট জালিয়াতিঃ প্রসঙ্গ রোহিঙ্গা অবৈধ ভাবে নাগরিকত্ব

আঃ আলীম, ষ্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আবারো রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে টাকা খেয়ে অবৈধভাবে পাসপোর্ট তেরী করে দেওয়াকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

জানাযায়, বন্দর নগরীর হাটহাজারী উপজেলার মেখল এলাকায়, এক রোহিঙ্গা নাগরিককে জাতীয়তা সনদপত্র দিয়ে পাসর্পোট করতে সহযোগিতা করার অভিযোগ উঠেছে মেখল ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধে।

গ্রামবাসী অভিযোগ, তিনি টাকার বিনিময়ে রেহিঙ্গা সদস্য “রোহিতোলপাড়ঙ্গা”কে বাংলাদেশি নাগরিকত্ব (পাসপোর্ট) পাওয়ায় সহযোগীতা করেছেন। এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর ঐ এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে হাটহাজারী থানার ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, ‘এক রোহিঙ্গা নাগরিকের চেয়ারম্যানের সনদ নিয়ে পাসর্পোট তৈরির বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ। এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জানা যায়, গত ৯ জুন হাফিজুল্লাহ( ছদ্ননাম) (রোহিতোলপাড়ঙ্গা আসল নাম) নামে এক রোহিঙ্গাকে জাতীয়তা সনদ দেন ৮ নং মেখল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন চৌধুরী। সেখানে হাফিজুল্লাহর পিতার নাম নুরুল আমিন, মায়ের নাম শামসুন নাহার এবং ঠিকানা খলিল সওদাগর বাড়ি এবং গ্রাম মোজাফ্ফরপুর ৩ নম্বর ওয়ার্ড উল্লেখ করা হয়। কিন্তু ওই ঠিকানায় হাফিজুল্লাহ নামের কোনো ব্যক্তি নেই। ওই জাতীয়তা সনদ ব্যবহার করে পাসপোর্টও তৈরি করেছেন হাফিজুল্লাহ।

গত ২৩ জুন সে পাসর্পোটের ফরম পূরণ করে জমা দেন। এলাকাবাসী অভিযোগ, আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন চৌধুরী রোহিঙ্গাকে পাসর্পোট করতে সহযোগিতা করেছেন। এর আগেই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে একই ধরণের অভিযোগ উঠেছিলো।

এ বিষয়ে মেখল ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন চৌধুরীর মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে পুলিশ বলছে, এব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করছি আমরা। এহেন রাষ্ট্র বিরোধী কর্ম কান্ডে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। অবশ্যই
কঠোর আইনি ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।


More News Of This Category
Theme Created By Tarunkantho.Com