Logo

দীর্ঘদিন প্রতীক্ষার পর মালয়েশিয়ার সাথে শ্রম বাজার চুক্তি সম্পন্ন

আঃ আলীম, ষ্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশ: রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১
মালয়েশিয়ার সাথে শ্রম বাজার

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারে বাংলাদেশের কর্মীদের নিয়োগের জন্য আজ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করবে দুই দেশ।

আজ (রবিবার) ১৯ ডিসেম্বর’২১ ইং মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের হিলটন হোটেলে স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় স্মারকে স্বাক্ষর করলেন দুই দেশের দুই মন্ত্রী মহোদয়। বাংলাদেশের পক্ষে স্বাক্ষর করেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এবং মালয়েশিয়ার পক্ষ সে দেশের মানবসম্পদ মন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান।

এর আগে ঢাকা ও কুয়ালালামপুরের কূটনৈতিক সূত্রমতে, নতুন এই সমঝোতা স্মারকে কর্মীদের সর্বোচ্চ অভিবাসন ব্যয় নির্ধারণ করা হচ্ছে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা এমনটাই জানিয়েছেন দুই দেশের বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ। এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন গণমাধ্যমে এসব তথ্য প্রদান করা হয়।

এতে আর আগের মতো সরকারি প্রক্রিয়ার সম্পৃক্ততা অর্থাৎ জিটুজি প্লাস পদ্ধতি থাকছে না। সেই সঙ্গে কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়ায় নতুন করে যুক্ত হচ্ছেনা মালয়েশিয়ার এজেন্টরা। বাংলাদেশ অংশে কর্মী প্রেরণে রিক্রুটিং এজেন্সির সংখ্যার কোনো বাধ্যবাধকতা থাকছে না।উক্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর উপলক্ষে গতকাল রাতেই মালয়েশিয়ার উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল।

বাংলাদেশ থেকে, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদের নেতৃত্বে চার সদস্যবিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের অন্যরা হলেন, প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, বিএমইটির মহাপরিচালক শহীদুল আলম এনডিসি ও উপপরিচালক সুষমা সুলতান প্রমুখ।

এর ফলে, মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশের মধ্যেকার দীর্ঘদিনের শ্রমবাজার সংক্রান্ত অচলাবস্থার অবসান ঘটলো আজ থেকে । এবং অবৈধ দালাল প্রক্রিয়ার বিলুপ্তি ঘটবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। সেই সাথে স্বল্প খরচে মালয়েশিয়া কর্মি পাঠানোর সুযোগ সৃষ্টি হবে।এই খবরে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশী প্রবাসী ও ঐদেশে যেতে ইচ্ছুক কর্মিরা উভয়ের জন্য বিরাট পাওয়া হবে মনে করছেন প্রবাসীরা।


More News Of This Category
Theme Created By Tarunkantho.Com