রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের তরুণকণ্ঠে” জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা  ইমেইলে (newstarunkantho@gmail.com)জীবন বৃত্তান্তসহ পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্র সংযুক্ত করে পাঠাতে পারেন।

বিয়ে করেও স্ত্রীকে ভরণপোষণ না দেয়ায় ইউপি সদস‍্য বিরুদ্ধে অভিযোগ

তরুণকণ্ঠ ডেস্ক
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০২৪, ২:৪০ অপরাহ্ন

মো. ফারুক হোসেন, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:

যৌতুকের জন‍্য শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন এবং স্ত্রীর ভরণপোষণ না দেওয়ায় স্ত্রীর অধিকারের দাবীতে নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলার ১নং বদলগাছী ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস‍্য মোঃ আইতুল হোসেনের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ আনলেন আইতুল হোসেনের ২য় স্ত্রী।

অভিযুক্ত স্বামী আইতুল হোসেন (৫১) পিতা মৃত তায়েজ উদ্দিন সোনার বদলগাছী উপজেলার সোহাসা গ্রামের বাসিন্দা এবং বর্তমান বদলগাছী ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ইউপি সদস‍্য বলে জানা যায়। আইতুলের ঘরে ১ম স্ত্রী ও সন্তান আছে।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, আমার স্বামী মোঃ আইতুল হোসেন নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলার

০১নং বদলগাছী ইউনিয়ন পরিষদের ০৬নং ওয়ার্ডের একজন ইউপি সদস্য। গত ০৬/১২/২০২৩ইং তারিখে রেজিঃ কাবিন নামা মূলে আইতুল হোসেনের আমাকে বিবাহ করে। বিয়ের পর কিছুদিন সংসারজীবন ভালো চললেও যৌতুকলোভী স্বামী আমার কাছে থেকে অন্যায়ভাবে যৌতুকের দাবী করে এবং এক পর্যায়ে আমার সাথে বিভিন্ন ধরনের শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন করতে থাকে।

অভাবী ভাইয়ের আশ্রয়ে থাকার সময় ৬নং ওয়ার্ডের

ইউপি সদস‍্য মোঃ আইতুল হোসেন আমাকে বিবাহের প্রস্তাব দিলে আমার ভবিষ্যৎ জীবন ভালো হবে মনে করে একটু সুখের আশায় আমি আইতুল হোসেনের প্রস্তাবে রাজি হই। আমার স্বামী মোঃ আইতুল হোসেন যৌতুকলোভী তা আমি পূর্বে জানতাম না। বর্তমানে আইতুল হোসেন আমাকে তার বাড়িতে প্রবেশ করতে দেয় না এবং আমাকে আমার নায্য অধিকার দেয় না। আমার সাথে বিবাহের সম্পর্কও রাখতে অনিহা প্রকাশ করছে এবং আমাকে তার ঘরে তুলতে চায় না আমি তার বাড়ীতে আশ্রয় না পেয়ে আমার অভাবী অতি দরিদ্র ভাইয়ের বাড়িতে অস্থায়ীভাবে আশ্রয় নিয়ে বসবাস করছি এবং পরের সংসারে কাজ কর্ম করে কোন রকম বেঁচে আছি।

অভিযোগে আরও বলেন, আমার স্বামী আইতুল হোসেন ইতিপূর্বেও অন্যায় অত্যাচার ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়ে এবং ভোরণপোষন না দিলে আমি বদলগাছী ইউনিয়ন পরিষদে অভিযোগ করি। অভিযোগ নিমিত্তে বৈঠকে আপোষনামা করে ও তা অস্বীকার করে। আপোষনামা অনুযায়ী আমার স্বামী আমাকে কোনরকম অধিকার দেয় না। পরবর্তীতে আমি থানায় অভিযোগ করি এবং থানায় অভিযোগ করেও কোন লাভ হয় নি সেখানেও উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করে। এসব নিয়ে বিভিন্ন স্থানে আমাকে ভয়ভীতি ও হুমকি ধামকি দেয়।

এ ব‍্যপারে আইতুলের ২য় স্ত্রী রেনু বলেন, স্ত্রী সন্তান থাকার পরেও আমার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে আমাকে বিবাহ করে। বিয়ের পর থেকেই আমাকে আমার পিতার বাড়ীতে রাখে এবং ভরণপোষণের দেয় না। এর আগেও অভিযোগ করেছি ভরণপোষণ দিবে বলে অঙ্গীকার করে আপোষ করেছিলো। ভরণপোষণ না পাওয়ায় আবারও থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমি স্ত্রীর অধিকার চাই।

এ ব‍্যপারে বদলগাছী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) সহকারী ভূমি কমিশনার আতিয়া খাতুন বলেন, এ ব‍্যপারে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব‍্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এ সম্পর্কিত

Theme Created By ThemesDealer.Com