রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের তরুণকণ্ঠে” জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা  ইমেইলে (newstarunkantho@gmail.com) জীবন বৃত্তান্তসহ পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্র সংযুক্ত করে পাঠাতে পারেন।

বাঘুটিয়ায় যমুনার ভাঙ্গনে বিলীন হচ্ছে ঘরবাড়ি ও বিস্তীর্ণ জনপদ

এ.বি. খান বাবু, বিশেষ প্রতিনিধি:
প্রকাশ : রবিবার, ৭ জুলাই, ২০২৪, ১১:২১ অপরাহ্ন

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার বাঘুটিয়ার চরাঞ্চল এলাকায় বর্তমানে যমুনা নদীর থাবায় বিলীন হচ্ছে ঘরবাড়ি ও বিস্তীর্ণ জনপদ। ভাঙ্গনের হুুমকির মুখে রয়েছে ঘর-বাড়ি, আবাদি ফসলি জমিন সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

গত কয়েক দিনে যমুনায় পানি বৃদ্ধি ও ঘন-ঘন বৃষ্টির ফলে প্রচন্ড ভাঙ্গনের কবলে দিশেহারা হয়ে পড়েছে নদীর পাড়ের বসবাসরত মানুষজন। এসময় কর্মহীন হয়ে পড়েছে অনেক খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষ। বর্ষা মৌসুমে চরাঞ্চলের মানুষজনের চলাচলের একমাত্র বাহন হচ্ছে ইঞ্জিন চালিত সেলো ও নৌকা।

সরেজমিনে বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিদর্শনকালে দেখা গেছে, বাঘুটিয়া বাজার থেকে শুরু করে পারুরিয়া পর্যন্ত ও বাঘুটিয়া নদীর পূর্বপার পাচুরিয়া, বাশাইল ও যোতকাশি এলাকায় সর্বনাশা যমুনা নদীর ভাঙ্গনের থাবায় নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে বাপ দাদার আমলের রেখে যাওয়া ঘরবাড়ি, ভিটে-মাটি ও বিস্তীর্ণ জনপদ।

ভাঙ্গনে শিকার রহিজ সেক বলেন, কালের চাকা ঘুরে সত্তরের দশকের মাঝামাঝি বাপদাদার ভিটেমাটি শিকদার পাড়া যমুনার কড়াল গ্রাসে ভেঙ্গে বিলীন হয়ে গেছে। এরপর বাঘুটিয়া পুরান পাড়া নানা বাড়িতে মা-বাবা আমাদের ভাই বোনদের নিয়ে সাত বছর আশ্রয় নেন। তার পর আশির দশকের শুরুতে নানাবাড়ি হতে এক বছর বয়সে বর্তমানে বাড়ি জিয়নপুরে আসি। ৯০ দশকের শুরুতে বাপদাদার ভিটেমাটিতে চর জাগলেও আর সেখানে যাওয়া হয়নি। মাঝে ৯০ দশকের শেষে সেই নানা বাড়িটাও যমুনার কড়াল গ্রাসে বিলীন হয়ে গেছে। এভাবে চলতে থাকলে উপজেলার মানচিত্র থেকে ইউনিয়নটি একদিন হারিয়ে যাবে।

বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমজাত হোসেন জানান, গত এক সপ্তাহের যমুনাগর্ভে বিলীন হয়েছে প্রায় ২০ থেকে ২৫ টি বসত বাড়ি ঘর। ভাঙ্গনের হুুমকির মুখে রয়েছে, ৫ নং বাঘুটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৮৪ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরকালিকা পুর দাখিল মাদ্রাসা সহ অনেক গ্রাম। প্রতিবছরের দফায়-দফায় ভাঙ্গনের ফলে নিঃস্ব ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে বাঘুটিয়ার নদী তীরবর্তী চরাঞ্চলের খেটে খাওয়া দিনমজুর অসহায় মানুষজন। ভাঙ্গন ও যমুনায় পানি বৃদ্ধির ফলে এলাকার মানুষজন তাদের পরিবার পরিজন,  গৃহপালিত পশু-পাখি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে ২টি স্থানে জিও ব্যাগ ফেলার কাজ চলছে। দিশেহারা মানুষজন ভাঙ্গন রোধে দ্রুত সরকারের আরো কার্যকারী পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন।


এ সম্পর্কিত

Theme Created By ThemesDealer.Com