রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের তরুণকণ্ঠে” জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা  ইমেইলে (newstarunkantho@gmail.com) জীবন বৃত্তান্তসহ পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্র সংযুক্ত করে পাঠাতে পারেন।

দৌলতপুরে মাটির ব্যবসা নিয়ে বিরোধ, যুবককে পিটিয়ে হত্যা

এ.বি.খান বাবু , বিশেষ প্রতিবেদক:
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৯ জুলাই, ২০২৪, ৮:৩৮ পূর্বাহ্ন

মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ঝন্টু ওরফে সোহাগ (২৮) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক মাটি ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে। গত রোববার রাতে উপজেলার কলিয়া ইউনিয়নের উয়াইল পূর্বপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তাঁকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত ঝন্টু উয়াইল পূর্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা, পেশায় সে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের চালক ছিলেন। অভিযুক্ত জাকির হোসেন একই গ্রামের বাসিন্দা।

নিহতের স্বজন ও স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দার দাবি, মাটিবাহী গাড়ি চলাচলের কারণে ঝন্টুর বাড়ির সামনে পাকা সড়কটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিষয়টি নিয়ে জাকির হোসেনের কাছে গিয়ে প্রতিবাদ জানান ঝন্টু। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এ বিরোধের জেরে গত রোববার রাত আটটার দিকে ঝন্টুকে রাস্তা থেকে তুলে ঈদগাহ মাঠে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

ঝন্টুর চাচাতো চাচা আমিনুর রহমান বলেন, এলাকায় মাটির ব্যবসার কারণে রাস্তাঘাট নষ্ট হওয়ায় ঝন্টু প্রতিবাদ করেন।
রোববার রাত আটটার দিকে বাড়ির সামনের রাস্তা থেকে জাকির ও তাঁর ১৫-১৬ জন সহযোগী ঝন্টুকে ধরে নিয়ে পাশের ঈদগা মাঠে যান। এরপর সেখানে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে এবং ইট দিয়ে থেঁতলে ঝন্টুকে হত্যা করেন তাঁরা।

রাতেই খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি মানিকগঞ্জ কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত জাকির হোসেন পলাতক আছেন। অভিযোগের বিষয়ে তাঁর মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে দৌলতপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফরিদ হোসেন বলেন, ঘটনাটির তদন্ত করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


এ সম্পর্কিত

Theme Created By ThemesDealer.Com