বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের তরুণকণ্ঠে” জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা  ইমেইলে (newstarunkantho@gmail.com)জীবন বৃত্তান্তসহ পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্র সংযুক্ত করে পাঠাতে পারেন।

সিংগাইরে পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় পুত্রবধূর হাতে খুন শাশুড়ি

তরুণকণ্ঠ ডেস্ক / ৬৯ বার পড়েছে.
প্রকাশ : বুধবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২৪, ৪:৫০ অপরাহ্ন
পুত্রবধূর হাতে খুন শাশুড়ি

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে তাহুরা বেগম (৫২) নামে এক নারীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার মালোশিয়া প্রবাসী পুত্রবধু আইরিন (১৯) আকতারের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১১ টার দিকে উপজেলার জামশা মাটিকাটা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত তাহুরা বেগম ওই গ্রামের সুনামুদ্দীনের স্ত্রী। এঘটনায় পুত্রবধু আইরিন আকতারকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

থানা পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার জামশা ইউনিয়নের মাটিকাটা গ্রামের সুনামুদ্দিনের ছেলে মালোশিয়া প্রবাসী রাসেল বিশ্বাস (৩৪) তিন মাস আগে একই জেলার হরিরামপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের আলগীরচর গ্রামের সিদ্দিক মোল্লার মেয়ে আইরিন আকতারকে বিয়ে করে। বিয়ের আগে আইরিন আকতারের সাথে লালমুদ্দিন নামে এক কলেজ শিক্ষকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিয়ের পরেও ওই কলেজ শিক্ষকের সাথে মুঠোফোনে কথা বলতো আইরিন। বিষয়টি জানাজানি হলে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সাথে কলহ সৃষ্টি ও সম্পর্কের অবনতি হয় আইরিনের। সপ্তাহ খানেক আগে স্বামী রাসেল বিশ্বাস মালোশিয়া চলে যান। এরই মধ্যে পুত্রবধূ আইরিনের স্বর্ণ গহনা নিজ হেফাজতে নেন শ্বাশুড়ি তাহুরা বেগম। এনিয়ে শ্বাশুড়ি ও পুত্রবধূর মধ্যে মনমালিন্য হয়।

নিহত তাহুরা বেগমের ভাই শেখ মামুন জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১১ টার দিকে শ্বাশুড়ি তাহুরাকে ঘরের বাইরে নিয়ে ধারালো অস্ত্র ও টর্চলাইট দিয়ে তার মাথায় আঘাত করতে থাকে আইরিন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) জিয়ারুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ভোর রাতে নিহত তাহুরা বেগমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানে হয়। সেই সাথে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে পুত্রবধূ আইরিন আকতারকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে পরকীয়া প্রেমের জেরে শ্বাশুড়িকে হত্যা করেছে আইরিন। নিহতের মাথায় ধারালো ও ভোতা অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এঘটনায় আইরিন ও তার কথিত প্রেমিক কলেজ শিক্ষক লাল মুদ্দিনের নামে থানায় মামলা করেছেন নিহতের ভাই শেখ মামুন। ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন ও আইরিনের কথিত প্রেমিককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


এ সম্পর্কিত

Theme Created By ThemesDealer.Com