রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের তরুণকণ্ঠে” জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা  ইমেইলে (newstarunkantho@gmail.com)জীবন বৃত্তান্তসহ পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্র সংযুক্ত করে পাঠাতে পারেন।

টিসিবি পণ্য আগে নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত-৩

তরুণকণ্ঠ ডেস্ক
প্রকাশ : বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ৮:০৪ অপরাহ্ন
বাঘায় টিসিবি পণ্য নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:

রাজশাহীর বাঘায় বাংলাদেশ ট্রেডিং কর্পোরেশন (টিসিবি) পণ্য নেওয়ার লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ৩ জন আহত হয়েছে। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার বাউসা ইউনিয়ন পরিষদে এই ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, উপজেলার বাউসা ইউনিয়ন পরিষদে বাংলাদেশ ট্রেডিং কর্পোরেশন (টিসিবি) কার্ডধারীরা পণ্য নিতে আসেন। এ সময় হেদাপতিপাড়া ও ভারালীপাড়া গ্রামের কার্ডধারীরা লাইনে দাঁড়িয়ে পণ্য নিচ্ছিলেন। ভারালীপাড়া গ্রামের রাজিব হোসেন নামের একজন লাইনের আগে যেতে চাই। এতে হেদাতিপাড়া গ্রামের গোলাম রাব্বি কাজল আগে যেতে নিষেধ করে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে তর্কবিতর্ক শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে খবর ছড়িয়ে পড়লে উভয়ে বাঁশের লাঠি, হাঁসুয়া নিয়ে একে অপরের উপর ধাওয়া করে। পরে ভারালীপাড়া গ্রামের রাজিব হোসেনের নেতৃত্বে বাউসা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয় ভাংচুর করা হয়।

সংঘর্ষে আহতরা হলেন-হেদাতিপাড়া গ্রামে নফেল প্রামানিকের ছেলে গোলাম রাব্বি কাজল (২৫), আবদুল মজিদ প্রামানিকের ছেলে খোরশেদ আলম (৪০), সুরাপ আলী প্রামানিকের ছেলে হুমায়ন কবির (৪০)। আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্র ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাউসা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার মহসিন আলী বলেন, টিসিবি পণ্য নেওয়ার লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে প্রথমে তর্কবিতর্ক হয়। এ নিয়ে চেয়ারম্যান ও স্থানীয়দের নিয়ে মিমাংসায় বসা হয়। এ সময় ভারালীপাড়া গ্রামের রাজিব হোসেনের নেতৃত্বে ১৫/২০ জনের একটি দল এসে হেদাতিপাড়া গ্রামের লোকজনের উপর হামলা করে আওয়ামী লীগের অফিস ভাংচুর করেছে।

অপর দিকে ভারালীপাড়া গ্রামের রাজিব হোসেন দাবি করেন হেদাতিপাড়া গ্রামের কার্ডধারীরা লাইনের আগে যাওয়াকে কেন্দ্র করে তর্কবির্তকের এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে।

বাঘা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, টিসিবি পণ্য নেওয়ার লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। এ বিষয়ে অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এ সম্পর্কিত

Theme Created By ThemesDealer.Com