বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার-৩ নোবিপ্রবির মালেক হল ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা, পদ পেয়ে উচ্ছ্বসিত শতাধিক কর্মী মনপুরা উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে আনারস বিতরন মানিকগঞ্জে নিলাম কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার পূর্বেই সরকারি গাছ বিক্রি শিবালয়ে মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন ইসলামি পাঠাগার উদ্বোধন নাগরিক পরিষদকে বান্দরবান থেকে বিতারিত করবে জেলা আওয়ামীলীগ চকমিরপুর ইউনিয়নের জনগণের কল্যাণে নিজেকে উৎসর্গ করতে চাই, সোহেল রুমায় কেএনএফের বিরুদ্ধে বম জনগোষ্ঠীর মানববন্ধন দৌলতপুর উপজেলা নির্বাচনে নতুন চেয়ারম্যান শফিক লামায় শ্রমিকবাহী পিকআপ উল্টে নিহত ১, আহত ৭
বিজ্ঞপ্তি:
অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আজকের তরুণকণ্ঠে” জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পর্যায়ে সাংবাদিক/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা  ইমেইলে (newstarunkantho@gmail.com)জীবন বৃত্তান্তসহ পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও জাতীয় পরিচয় পত্র সংযুক্ত করে পাঠাতে পারেন।

সোনালী ব্যাংকের রুমা শাখার ম্যানেজারকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর

তরুণকণ্ঠ ডেস্ক
প্রকাশ : শুক্রবার, ৫ এপ্রিল, ২০২৪, ৯:৩৮ অপরাহ্ন

আবুবকর ছিদ্দীক, বান্দরবান:

সোনালী ব্যাংকের বান্দরবানের রুমা শাখার অপহৃত ম্যানেজার নেজাম উদ্দীনকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আজ (শুক্রবার, ৫ এপ্রিল) সকালে র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র্যাব) পক্ষ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

ব্রিফিংয়ে র্যাব জানিয়েছে, সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজারের কাছ থেকে ল্যাপটপ সংগ্রহ করে সাইবার হামলার পরিকল্পনা করেছিল কুকি-চিন সন্ত্রাসীদের।

অপহরণের প্রায় দুদিন পর গতকাল (বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল) কুকি-চিনের সঙ্গে র্যাবের মধ্যস্থতায় তাকে উদ্ধার করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে র্যাবের বান্দরবান ক্যাম্পে নেওয়া হয়। নেজাম উদ্দীনকে উদ্ধারের তথ্য নিশ্চিত করেন র‍্যাব সদর দপ্তরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

জানা গেছে, রুমার যে স্থান থেকে অপহরণ করা হয়েছিল ওই এলাকার আশপাশ থেকেই পরিবার ও র্যাবের সহায়তায় বিশেষ কৌশল অবলম্বন করে তাকে উদ্ধার করা হয়। তিনি শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন।

রাতে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আফজাল করিম বলেন, ‘তাকে নির্যাতন করা হয়নি। নেজাম উদ্দীন ট্রমাটাইজড না, উনি সুস্থ আছেন।’

এদিকে ব্যাংক ম্যানেজারকে উদ্ধারের পর আবারও থানচির সোনালী ব্যাংক শাখা এলাকায় হামলা চালায় সশস্ত্র গোষ্ঠী কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ)। সেখানে পুলিশের সঙ্গে তাদের গোলাগুলি চলে বলে জানান বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জুনায়েদ জাহেদী।

গত মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাত ৮টার দিকে তারাবির নামাজ চলাকালে বান্দরবানের রুমা উপজেলায় হামলা চালায় সশস্ত্র গোষ্ঠী কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ)। সোনালী ব্যাংকের শাখায় ঢুকে ব্যাংকের ভল্ট ভেঙে টাকা লুটের চেষ্টা চালায়।

এ সময় তারা ব্যাংকের আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত পুলিশ সদস্যদের অস্ত্রও লুট করে। একইসঙ্গে মসজিদ থেকে রুমা শাখার সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজার নেজাম উদ্দীনকে অপহরণ করে নিয়ে যায় সশস্ত্র ওই বাহিনী।

এর আগে র্যাবের পক্ষ থেকে আজ জানানো হয়, অপহৃত ব্যাংক ম্যানেজারকে মুক্তি দিতে ১৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে কেএনএফ।

র্যাব বলছে, কেএনএফের আর্থিক সংকট চলছিল, তা আগে থেকেই কয়েকটি সংস্থাকে জানানো হয়েছিল। এ সংকট দূর করার জন্যই সশস্ত্র গোষ্ঠীটি ব্যাংক ডাকাতির ঘটনা ঘটিয়েছে।


এ সম্পর্কিত

Theme Created By ThemesDealer.Com